প্যারাই15 থেকে 20 দিনের মধ্যে আমেরিকা অনেক অফিসার ও পেন্টাগনের অফিসার আর আমেরিকার রাষ্ট্রীয় সচিব(Secreetary of state) এখন চীনের রাষ্ট্রপতিকে(president) কথা আর ব্যবহার করবেন না। এখন বলবেন সাধারণ সম্পাদক (General secreetary of ccp) । এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্ত|

“একটি বিষয় আসে যখন সরল সত্যটি হ’ল তিনি উদার গণতন্ত্রে রাষ্ট্রপতি নন যে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন এবং সুশীল সমাজ ও জনগণের রাজনৈতিক সমর্থন উপভোগ করেন,” ইউএসএ-চীন অর্থনৈতিক ও সুরক্ষার চেয়ারম্যান রবিন ক্লেভল্যান্ড বলেছেন। পর্যালোচনা কমিশন (ইউএসসিসি)।

কংগ্রেসের(usa congres) মাধ্যমে দুই দেশের অর্থনৈতিক সম্পর্কের জাতীয় সুরক্ষা সম্পর্কিত প্রভাব সম্পর্কে আইনজীবিদের পরামর্শের জন্য গঠিত, ইউএসসিসি তার সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদনে ঘোষণা করেছে যে, তাকে আর ‘রাষ্ট্রপতি’ নয়, তবে ‘সাধারণ সম্পাদক’ বলা হবে, যাকে “উপাধি বলা হয়। যার দ্বারা সে তার কর্তৃত্ব অর্জন করে।

এর আগে আমেরিকা এইসব কূটনৈতিক চাল চলেছিল ঠান্ডা যুদ্ধ সময় ইউএসএ স্যারের সঙ্গে তখন ইউএসএসআর এর প্রধান কে তারা রাষ্ট্রপতি বলেননি বলেছেন সাধারণ সচিব ইউএসএসআর(USSR)

চীন সভাপতির অধীনে ক্রমবর্ধমান কট্টরপন্থী বিধি সম্পর্কে ইউএসএ উপলব্ধি বাড়িয়ে তুলেছিল এমন উন্নয়নমূলক পদগুলির মধ্যে ছিল তার মেয়াদ সীমা অপসারণ।

জিনিজিয়াংয়ে জাতিগত সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর ওপর আতাচার।

নাগরিক সমাজের সমস্ত উপাদানগুলির উপর দলীয় তদারকি জোরদার করার জন্য হংকং ও চীন রাষ্ট্রপতির প্রচারণার উপর একটি জাতীয় জাতীয় সুরক্ষা আইন কার্যকর করা।

এই নির্দেশ দেখে মনে হয় আমেরিকা ও চীনের মধ্যে ঠান্ডা যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে।